May 17, 2021, 7:44 pm
Headline :
ঈদের ছুটিতে বাড়িতে এসে মিথ্যা মামলায় ফেঁসে গেলেন ব্যাংক কর্মকর্তা হালিশহর হাউজিং এলাকার জনি হত্যায় জড়িত সাজ্জাদকে আটক করেছে র‍্যাব(ভিডিও সহ) আনোয়ারায় সড়ক দুর্ঘটনায় কেড়ে নিলো বাবা মেয়ের প্রাণ , মা ও আশঙ্কাজনক আনোয়ারায় পৃথক দুই সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ২ আহত ১৮ সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করে পারকী বীচে পর্যটকদের উপচেপড়া ভীড়   সিএমপিতে উপ কমিশনার হিসেবে যোগদান করবেন হানিফ শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় তকতের কবলে পড়তে পারে বাংলাদেশ চার দিনের রিমান্ডে মুখ খুলেননি মাষ্টারমাই বাবুল আক্তার ফের রিমান্ডে ভারত থেকে আখাউড়া চেকপোস্ট দিয়ে দেশে ফিরছেন ৬০০ বাংলাদেশি যাত্রী দেশে এখন পর্যন্ত কোনো প্রতিষ্ঠানকে ভ্যাকসিন উৎপাদনের অনুমতি দেয়নি

করোনা চিহ্নিত করে নগরীর ৭ এলাকায় পুলিশের পক্ষ থেকে কঠোর রেড জোন

সিএসপি নিউজ : করোনাভাইরাসে অতি সংক্রমিত হিসেবে চিহ্নিত করে নগরীর ৭টি এলাকায় নগর পুলিশের পক্ষ থেকে রেড জোনের ব্যানার সাঁটানো হয়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা হিসেবে কঠোর বিধি নিষেধ প্রতিপালনের পাশাপাশি বাড়তি সতর্কতার উদ্দেশ্যে এসব এলাকাকে বিশেষভাবে চিহ্নিত করার কথা জানিয়েছে নগর পুলিশ। এ এলাকাগুলোতে মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি বিভিন্ন বিধি নিষেধ কঠোরভাবে প্রতিপালনে পুলিশ গতকাল থেকেই তদারকি শুরু করেছে। নগরীর চকবাজার থানার জয়নগর আবাসিক, মেডিকেল এলাকা, পাঁচলাইশ থানার বাগমনিরাম ওয়ার্ডের ও আর নিজাম রোড এলাকা, হালিশহর থানার রামপুর ওয়ার্ডের সবুজবাগ ও নয়াবাজার এলাকা এবং পাহাড়তলী থানার সরাইপাড়া ওয়ার্ডের মৌসুমী আবাসিক ও সাগরিকা এলাকার একটি অংশকে বিশেষভাবে চিহ্নিত করে রেড জোনের ব্যানার সাঁটানো হয়েছে। যদিও গত ১৪ এপ্রিল থেকেই সারাদেশে কঠোর লকডাউন চলছে। যা আরো এক সপ্তাহ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তবে দেশব্যাপী এই কঠোর লকডাউন চলাকালীন নগরীর কিছু এলাকাকে আলাদাভাবে রেড জোন ঘোষণার বিষয়ে অবগত নয় চট্টগ্রামের স্বাস্থ্য বিভাগ। চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বলছেন, বিষয়টি আমাদের জানা নেই। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা ছাড়া এ ধরণের রেড জোন বা ইয়েলো জোন ঘোষণার সুযোগ আমাদের নেই।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (সিটিএসবি) মো. মঞ্জুর মোর্শেদ  বলেন, আমরা এটাকে ঠিক রেড জোন ঘোষণা বলছি না। করোনাভাইরাসে অতি সংক্রমিত ও ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে এসব এলাকার কিছু কিছু অংশকে বিশেষভাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। মূলত বাড়তি সতর্কতার উদ্দেশ্যেই এটা করা।
রেড জোনের ব্যানার সাঁটানোর বিষয়ে হালিশহর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম ও পাহাড়তলী থানার ওসি হাসান ইমাম বলেন, চিহ্নিত এলাকার প্রতিটি প্রবেশমুখের মূল ফটক বন্ধ করে দিয়ে মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কাউকে চলাচল করতে দেয়া হচ্ছে না। একই সাথে স্বাস্থ্যবিধি ও বিধি নিষেধ মেনে চলতে মানুষকে সচেতন করার উদ্দেশ্যে মাইকিং করা হচ্ছে।
নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) বিজয় বসাক বলেন, কোন এলাকার প্রতি এক লাখ বাসিন্দার মাঝে ৬০ জনের বেশি করোনায় আক্রান্ত হলে ওই এলাকাকে অতি সংক্রমিত বা ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে বিশেষভাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এটি মূলত অতি সংক্রমিত এলাকার বাসিন্দাদের আরো বেশি সচেতন করার উদ্দেশ্যেই করা। মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণ ও বিধি নিষেধ কঠোর করার মাধ্যমে এসব এলাকায় করোনার সংক্রমনটা যাতে নিয়ন্ত্রণে আনা যায়, পুলিশের পক্ষ থেকে সে চেষ্টাই করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Our Like Page