বুধবার, ৮ জুলাই ২০২০ ২৪শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, সময় : রাত ১২:১২

কলকাতায় হোটেলবন্দির চার মাস পর ঢাকায় ফিরলেন তারা


প্রকাশের সময় :১৮ জুন, ২০২০ ১২:২৬ : পূর্বাহ্ণ

সিএসপি নিউজ : গত ১৬ ফেব্রুয়ারি কলকাতায় গিয়েছিলেন অভিনেতা শিপন মিত্র, ইমতু রাতিশ ও সাঞ্জু জন। সঙ্গে ছিলেন আরও ১২ জন শিল্পী-কলাকুশলী।

আইসল্যান্ডে একটি চলচ্চিত্রের শুটিংয়ে অংশ নিতে দেশটির ভিসার জন্য আবেদন করতে তারা ভারতে জান। পাসপোর্ট জমা দেওয়ার কিছু দিনের মধ্যে শুরু হয়ে যায় বিপত্তি। কারণ, করোনায় ততক্ষণে ভারতজুড়ে লকডাউন। আটকা পড়েন শিপন মিত্র, ইমতু রাতিশ ও সাঞ্জু জন। এভাবেই কেটেছে তাদের হোটেলবন্দির চার-চারটি মাস।
অবশেষে গতকাল (১৬ জুন) দেশে ফিরলেন তারা।
বিষয়টি নিয়ে ইমতু রাতিশ বলেন, ‘১৫ সদস্যের দলের বেশিরভাগই পাসপোর্ট ফেরত পেয়েছিলেন। শুধু আমাদের কয়েকজনের যেদিন পাসপোর্ট দেওয়ার কথা, সেদিনই ভারতে জনতা কারফিউ শুরু হয়। মানে লকডাউন। প্রতিদিনই ভেবেছি, এটাই বোধহয় শেষ সপ্তাহ, পাসপোর্ট পেয়ে যাবো। কিন্তু তা হয়নি। লকডাউন শেষ হওয়া নিয়ে অনেক গুজব শুনেছি, কিন্তু এটা আর শেষ হয় না। অবশেষে গত শুক্রবার আমরা পাসপোর্ট হাতে পাই। আমি, জন, শিপন ও চ্যানেল আই ফেয়ার অ্যান্ড হ্যান্ডসাম প্রতিযোগিতার তন্ময় একসঙ্গে দেশে ফিরলাম।’
জানান, পাসপোর্ট হাতে পাওয়ার পর নিজেরা গাড়ি ভাড়া করে সীমান্তে আসেন। এরপর বাংলাদেশে প্রবেশ করেন। বুধবার সকালে ইমতু আরও বলেন, ‘বিষয়টা যে এত দীর্ঘ হবে, তা আমরা কেউই বুঝতে পারিনি। প্রতিমুহূর্তে দেশকে মিস করতাম। মন খারাপ হতো। কারণ, এখন সময়টা খুবই খারাপ। দেশে আমাদের পরিবার-পরিজনও ভীষণ দুশ্চিন্তা করতো। যাক, অবশেষে ঢাকার বাতাসে নিশ্বাস নিতে পারলাম।’
শিপন, ইমতু ও জন চলচ্চিত্রের অন্যতম তরুণ অভিনেতা। গত বছর ও চলতি বছরের বেশ কিছু ছবিতে তারা কাজ করেছেন। ইফতেখার চৌধুরীর নতুন চলচ্চিত্রে তাদের কাজ করার কথা। যার বেশ কিছু দৃশ্য ধারণ হবে আইসল্যান্ডসহ বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে।