শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১ ৯ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, সময় : ভোর ৫:২৪

শিরোনাম

পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে সিনহাকে : র‌্যাব


প্রকাশের সময় :১৩ ডিসেম্বর, ২০২০ ৮:০২ : অপরাহ্ণ

সিএসপি নিউজ: মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এমন তথ্য, সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতেই ১৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেছেন। রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের অস্থায়ী মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রবিবার (১৩ ডিসেম্বর) বিকেল ৩টার দিকে র‌্যাব সদর দপ্তরের মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ এসব তথ্য জানান।

এর আগে র‌্যাব সকাল ১০টায় টেকনাফ থানার বরখাস্তকৃত ওসি প্রদীপ কুমার ও এসআই লিয়াকত আলীসহ ১৫ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট আদালতে জমা দেয়। কক্সবাজার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহর আদালতে অভিযোগপত্রটি জমা দেয়া হয়।

আশিক বিল্লাহ বলেন, পরিকল্পিতভাবে সিনহাকে হত্যা করা হয়। এর মূল ভূমিকায় ছিলেন টেকনাফ থানার বরখাস্তকৃত ওসি প্রদীপ দাস। সিনহা টেকনাফে তার সহযোগীদের সঙ্গে নিয়ে ভিডিও করার পরিকল্পনা করছিলেন। ওই সময় স্থানীয়রা সিনহাকে ওসি প্রদীপের ইয়াবা চোলাচালানসহ বিভিন্ন অপকর্মের কথা জানান। অভিযোগের বিষয়গুলো নিয়ে মেজর সিনহা ওসি প্রদীপের সাক্ষাৎকার নিতে চান। এসময় সিনহার সহযোগীরা তার সঙ্গে ছিলেন। কিন্তু ওসি প্রদীপ মেজর সিনহাকে এসব থেকে সরে আসতে বলেন। সিনহা রাজি না হলে তাকে দেখে নেয়ার হুমকি দেন।

র‌্যাব মিডিয়া উইংয়ের এই পরিচালক আরো জানান, বিপদে পড়তে যাচ্ছেন জেনে ওসি প্রদীপ মেজর সিনহাকে শায়েস্তা করার পরিকল্পনা করেন। এরই অংশ হিসেবে জুলাইয়ের দ্বিতীয় সপ্তাহে ওসি প্রদীপ, লিয়াকত ও পুলিশের তিন সোর্স নুরুল আমিন, আয়াত ও নিজামউদ্দীনকে নিয়ে টেকনাফ থানায় বসে একটি মিটিং করেন। ওই মিটিংয়ে মেজর সিনহাকে হত্যার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফের মারিশবুনিয়া পাহাড়ে ভিডিওচিত্র ধারণ করে মেরিন ড্রাইভ দিয়ে কক্সবাজারের হিমছড়ি এলাকার নীলিমা রিসোর্টে ফেরার পথে টেকনাফ শামলাপুর তল্লাশি চৌকিতে গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ। এ ঘটনায় গত ৫ আগস্ট নিহত সিনহার বোন শারমিন শাহরিয়ার ফেরদৌস বাদি হয়ে টেকনাফ বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের সাবেক ইনচার্জ পরিদর্শক লিয়াকত আলীকে প্রধান আসামি করে টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ ৯ জন পুলিশ সদস্যকে আসামি করা হয়। আদালত র‌্যাবকে মামলাটির তদন্তের আদেশ দেয়।