সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১০:০০ অপরাহ্ন

বড় ভাইকে কিডনি দিয়ে বাঁচালো ছোট ভাই

বড় ভাই বাবার মতো। কোনো পরিবারে বাবা মারা গেলে সেই পরিবারের বড় ভাই ছোট ভাইবোনদের অভিভাবকের দায়িত্ব পালন করেন। তবে মাঝেমধ্যে ছোটভাইটাও এমন কিছু দায়িত্ব পালন করে যেটা গল্প কিংবা সিনেমার কাহিনিকেও হার মানায়। এই যেমন, সুনামগঞ্জের এক ছোট ভাই তার নিজের একটি কিডনি দিয়ে দিলেন বড় ভাইকে বাঁচিয়ে রাখার আশায়।

কথায় আছে ‘ভাই বড় ধন, রক্তের বাঁধন’। সত্যিই তাই। রক্তের বাঁধন এতটাই শক্তিশলী যে, নিজের জীবন দিয়ে হলেও রক্তের কাউকে মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরিয়ে আনতে মানুষ হাজার বার চেষ্টা করে। বড় ভাইয়ের প্রতি ভালোবাসার এমন বাস্তব প্রমাণ দিয়েছেন সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার রানিগঞ্জ ইউনিয়নের ভালিশ্রী গ্রামের মরহুম জহির আলীর ছেলে। আপন বড় ভাইকে বাঁচাতে নিজের কিডনি দিয়েছেন তিনি।

গত বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সফল অস্ত্রোপচার শেষে তারা দুই ভাই বর্তমানে ঢাকার কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ভাইয়ের জন্য ভাইয়ের এমন ভালোবাসা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছে, প্রশংসা কুড়িয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের ভালিশ্রী গ্রামের মরহুম জহির আলীর তিন পুত্র সন্তান রয়েছে। এরমধ্যে বড় ছেলে স্থায়ীভাবে যুক্তরাজ্যে বাস করছেন। মেজো ছেলে কোরআনের হাফেজ রুহুল আমিন পরিবারের কাজকর্ম করেন। আর ছোট ছেলে সোয়েব আহমদ সিলেটের মদন মোহন কলেজের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

গেল বছর রুহুল আমিনের কিডনিজনিত সমস্যা ধরা পড়ে। পরে বিভিন্ন জায়গায় চিকিৎসা নিয়ে গত সাত মাস ধরে ঢাকার কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। চিকিৎসকরা তার দুটি কিডনি বিকল হয়ে যাওয়ার কথা জানিয়ে যত দ্রুত সম্ভব কিডনি প্রতিস্থাপনের কথা বলেন। এমন দুঃসংবাদে ভেঙেপড়ে পরিবারটি। সেই সময় রুহুল আমিনের আপন ছোট ভাই সোয়েব আহমদ বড় ভাইকে বাঁচাতে তার পাশে দাঁড়ান। স্বেচ্ছায় নিজের কিডনি বড় ভাইকে দেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানান।

পরে গত বুধবার পরিবারের সবার মতামতের ভিত্তিতে ঢাকার কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতালে তাদের অস্ত্রোপচার করা হয়। ওই দিন বিকেল ৩টার দিকে তাদের অস্ত্রোপচার শুরু হয়। ৪ ঘণ্টার অস্ত্রোপচারের পর বর্তমানে দুই ভাই সুস্থ আছেন।

সোয়েবের ভগ্নিপতি কাজি আহমদ কিডনি প্রতিস্থাপনের বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেন এবং অপারেশনের পর দুই ভাই সুস্থ্য আছেন বলে জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুক পেইজ