সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১১:২০ অপরাহ্ন

রেলের ব্যাডিং ধোলাইয়ের টেন্ডার পাচ্ছে টাইগারপাসের আলি

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চল বাণিজ্যিক শাখার অধীনে আগামীকাল ৬ সেপ্টেম্বর ট্রেনের বেডিং ধোলাইয়ের টেন্ডার আহব্বান করা হলেও টেন্ডারের কে পাবে তা আগেই নির্ধারণ করে ফেলেছেন কর্মকর্তারা।

চট্টগ্রাম নগরীর টাইগারপাস এলাকার আলী নামের এক টিকাদার পূর্বাঞ্চল রেলওয়ের বাণিজ্যিক শাখার উচ্চমান সহকারি রেজা হায়দারের মাধ্যমে টেন্ডার পাওয়ার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন।

বেডিং ওয়াশের টেন্ডার সিডিউল ক্রয় করতে যাওয়া একাধিক টিকাদার নাম প্রকাশ না শর্তে প্রতিবেদককে জানান টেন্ডার পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে টাইগারপাসের আলীর নিকট থেকে উচ্চমান সহকারি রেজা হায়দার অগ্রিম টাকা নিয়ে উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করেছেন। তাই ঠিকাদার আলীর নির্দেশনা ব্যতীত কাউকে সিডিউল বিক্রি করা হচ্ছে না।

ঠিকাদাররা আরো জানান আমরা বাণিজ্যিক শাখার উচ্চমান সহকারি রেজা হায়দারের নিকট সিডিউল ক্রয় করতে গেলে তিনি নানা রকম কাজের অজুহাত দেখিয়ে কালক্ষেপণ করতে থাকে, এক পর্যায়ে সিআরবি রেলওয়ে সদর দপ্তর নিয়ন্ত্রণকারী দুটি সন্ত্রাসী গ্রুপ আমাদের টেন্ডার সিডিউল না কিনে সিআরবি সদর দপ্তর থেকে চলে যাওয়ার জন্য হুমকি প্রদান করলে আমরা সিডিউল  না করে চলে আসি। উক্ত অভিযোগের সত্যতা যাচাইয়ের জন্য সরেজমিনে সিআরবি পূর্বাঞ্চল রেলের বাণিজ্যিক শাখার উচ্চমান সহকারীর অফিসে গেলে তাকে অফিসে পাওয়া যায়নি অফিস সহকারি মিতুস চাকমার নিকট থেকে তাহার ফোন নাম্বার নিয়ে যোগাযোগ করা হলে টেন্ডারের সিডিউল বিক্রির দায়িত্বে থাকা উচ্চমান সহকারীর প্রতিবেদককে জানান আমি অ্যাডিশনাল চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার ( পূর্ব ) মিজানুর রহমান স্যারের ল্যাপটপ মেরামত করার জন্য বাইরে এসেছি।

তিনি প্রতিবেদককে আরও জানান টেন্ডার সংক্রান্ত বিষয়ে কিছু জানতে হলে ডেপুটি চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার (পূর্ব) তৌসিয়া আহমেদ সাথে যোগাযোগ করুন।

টেন্ডার প্রক্রিয়ার অনিয়মের বিষয়ে জানার জন্য দায়িত্বে থাকা চট্টগ্রাম রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বাণিজ্যিক শাখার ডেপুটি চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার (পূর্ব) তৌশিয়া আহমেদ নিকট জানতে চাইলে তিনি অনিয়মের বিষয়টি প্রত্যাখ্যান করে প্রতিবেদককে জানান রেলপথ মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা থাকলেও ইজিপি টেন্ডার করা সম্ভব নয়।
পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের মাধ্যমে আমরা ওপেন টেন্ডার এর ব্যবস্থা করেছি ইতিমধ্যে চট্টগ্রামে দশটি ও ঢাকায় ছয়টি সিডিউল বিক্রি করা হয়েছে।

টাইগারপাসের আলী টেন্ডার পাওয়ার বিষয়টি আগেভাগে নিশ্চিত হওয়ার বিষয়ে তথ্য জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান। গুপ্সী বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি কয়েকটি বহুল প্রচারিত দৈনিক এর নাম উল্লেখ করলেও পত্রিকার বিজ্ঞাপন ও ছাপার তারিখ জানাতে অস্বীকৃতি প্রকাশ করেন।

বেডিং ওয়াস টেন্ডার প্রক্রিয়ার অভিযোগের বিষয় অ্যাডিশনাল চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার মিজানুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানে না বলে প্রতিবেদককে জানান।

পূর্বাঞ্চল রেলওয়ের বাণিজ্যিক শাখার উচ্চমান সহকারি রেজা হায়দারের মাধ্যমে ১৫% কমিশন চুক্তিতে অগ্রিম টাকা প্রদান কারী নগরীর টাইগারপাস এলাকার ঠিকাদার মোহাম্মদ আলী মোহাম্মদ আলীর মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে জানতে চিফ কমাশিয়াল ম্যানেজার নাজমুল ইসলামকে কল করা হলে তিনি রিসিভ করেননি।

রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক (পূর্ব) জাহাঙ্গীর হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি প্রতিবেদককে জানান টেন্ডার প্রক্রিয়া কোনরকম অনিয়ম ও অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুক পেইজ