রোববার, ৪ এপ্রিল ২০২১, ২১শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, সময় : রাত ৩:২৪

শিরোনাম

শীতকালীন সবজির বাজার তুলনামূলক দাম কমলেও বাড়ছে নিত্যপণ্যের দাম


প্রকাশের সময় :১১ ডিসেম্বর, ২০২০ ১১:০৩ : অপরাহ্ণ
সিএসপি নিউজ : বাজারে শীতকালীন সবজি সরবরাহ বাড়ার সাথে সাথে দাম কমেছে ফুলকপি, শিম ও বাঁধাকপিসহ অন্যান্য সবজির। অন্যদিকে সপ্তাহ ব্যবধানে বাড়ছে চাল, তেল, আদা ও মাছের দাম।

শুক্রবার সকালে নগরীর কাজির দেউড়ি ও চকবাজার কাঁচাবাজারে সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা যায় সপ্তাহ ঘুরলেও দাম কমেছে শীতকালীন সবজির।
পুরনো আলু প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪৫ টাকায় ও নতুন আলু বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকায়, যা গত সপ্তাহে বিক্রি হয়েছিল ৬০ ও ১২০ টাকায়। কমেছে বেগুনের দাম, গত সপ্তাহে ৮০ টাকায় টাকা কেজি দরে বিক্রি হলেও এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকায়। বরবটি ছিল ৯০ টাকা, এ সপ্তাহে তা বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকায়। বড় তিতকরলা ৮০ ও ছোট ৯০ টাকা, চিচিঙা ৬০ টাকা, ঢেঁড়শ ৭০ থেকে ৮০ টাকা। কাঁচামরিচ জাত ভেদে বিক্রি হচ্ছে ১২০ থেকে ১৫০ টাকা, শসা ৭০ টাকা, ক্যাপসিকাম ৩২০ থেকে ৪০০ টাকা, টমেটো ১০০ টাকা।
শীতকালীন সবজি শিম, বাঁধাকপি ও ফুলকপি দাম তুলনামূলক কমছে। গত সপ্তাহে শিম বিক্রি হয়েছে কেজি প্রতি ৮০ টাকায় আজ চলছে ৫০ টাকায়। এছাড়া বাঁধাকপি বিক্রি হয়েছে   প্রতি কেজি ৪০ থেকে ৫০ টাকা এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকায়, ফুলকপি বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ২০ থেকে ৩০ টাকায়। মিষ্টি কুমড়া ৪০ টাকা, টমেটো ১০০ টাকা, লাউ ৪০ টাকা, পেঁপে ৪০ টাকা, ছোট কচু ৫০ টাকা, গাজর ৯০ টাকা।
পাকিস্তানি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৫০ টাকায়, তুর্কি পেঁয়াজ প্রতি কেজি ৬০ থেকে ৬৫ টাকা, এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়। রসুন বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ১০০ টাকায়, আদার দাম বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকায়।
এদিকে প্রতি কেজি হাড়ছাড়া গরুর মাংস ৭০০ টাকা, হাড়সহ ৬০০ টাকা, খাসি প্রতি কেজি ৮০০ টাকা, ব্রয়লার মুরগি ১২০ টাকা, সোনালি  মুরগি ২২০ টাকা ও লেয়ার মুরগি ২৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।
মাছের বাজারে কিছুটা দাম বাড়ার আশঙ্কার কথা জানালেন ব্যবসায়ীরা। প্রতি কেজি পুকুরের চিংড়ি বিক্রি হচ্ছে ৪৫০ টাকা, দেশি রুই ৩০০ টাকা, কাতাল ২৮০ টাকা, রূপচাঁদা ৫০০ টাকা, কৈ ৪০০ টাকা, শিং ৫০০ টাকা, বাটা ৩২০ টাকা, পাবদা ৩৫০ থেকে ৩৮০ টাকা এবং লইট্টা বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকায়।
অন্যদিকে দাম বেড়ে চলেছে চালের। সপ্তাহের ব্যবধানে বেড়েছে প্রতি বস্তায় ১০০ থেকে ১৫০ টাকা। মিনিকেট চাল গত সপ্তাহে প্রতি ৫০ কেজির বস্তা বিক্রি হয়েছে ২৫৫০ টাকায় যা এ সপ্তাহে দাম বেড়ে ২৭০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কাটারি ছিল প্রতি ২৫ কেজি বস্তা ১৫০০ টাকা, যা এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ১৬০০ টাকায়।
অপরদিকে তেলের দামও বেড়েছে। প্রতি লিটার সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে মানভেদে ১১০ থেকে ১২০ টাকায় এবং সরিষার তেল বিক্রি হচ্ছে প্রতি লিটার ২৩০ টাকায়।