শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১ ৯ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, সময় : রাত ৪:৩২

শিরোনাম

সাতকানিয়ায় ২ ইটভাটা উচ্ছেদ ও ৭টিকে জরিমানা


প্রকাশের সময় :৭ জানুয়ারি, ২০২১ ১১:২৮ : অপরাহ্ণ
নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
পরিবেশগত ছাড়পত্র ও জেলা প্রশাসনের লাইসেন্স বিহীন অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে নিয়মিত উচ্ছেদ অভিযানের অংশ হিসাবে আজকে পরিবেশ অধিদপ্তর ও জেলা প্রশাসনের যৌথ অভিযানে চট্টগ্রাম জেলার সাতকানিয়া উপজেলায় অবস্থিত ২টি অবৈধ ইটভাটা উচ্ছেদ করা হয়েছে এবং ৭টি ইটভাটাকে ১৫ লক্ষ টাকা জরিমানাসহ ২০ লক্ষ টাকার কাঁচা ইট ধ্বংস করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার ৭ জানুয়ারি সকাল ৯ঃ০০ টা থেকে বিকাল ৫ঃ০০টা পর্যন্ত পরিচালিত এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গালিব চৌধুরী। অভিযানে পরিবেশ অধিদপ্তরের পক্ষে চট্টগ্রাম জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আফজারুল হোসেন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ, র্যাব-৭ এবং ফায়ার সার্ভিস অভিযানে সহযোগিতা করেন।

অভিযানে অনুমোদনবিহীন কার্যক্রম পরিচালনার অভিযোগে সাতকানিয়া উপজেলার এওচিয়া ইউনিয়নে ১২০ ফুট চিমনিবিশিষ্ট দুটি ব্রিক ফিল্ডের কিলন ভেঙ্গে গুঁড়িয়ে দেয়া হয়। ব্রিক ফিল্ড দুটি হলো- এএসসি ব্রিক ফিল্ড ও ডিএমবি ব্রিক ফিল্ড।

এছাড়া এওচিয়া ইউনিয়াধীন ছনখোলা চূড়ামণি এলাকার মেসার্স বিসমিল্লাহ ব্রিকস কোম্পানিকে ১,৫০,০০০ (এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা), মেসার্স মা ব্রিক ফিল্ডকে ১,৫০,০০০(এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা), হযরত আলী (র.) ব্রিক ফিল্ডকে ১,৫০,০০০ (এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা), মেসার্স খাজা ব্রিকসকে ১,৫০,০০০(এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা), কাজী এম ব্রিকসকে ৫,০০,০০০(পাঁচ লক্ষ টাকা), থ্রী স্টার ব্রিকসকে ২,০০,০০০(দুই লক্ষ টাকা) ও জামাল ব্রিকস ম্যানুফ্যাকচারকে ২,০০,০০০ (দুই লক্ষ টাকা) অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। এছাড়া প্রায় ২৫ লক্ষ টাকার ইট ধ্বংস করা হয়।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গালিব চৌধুরী জানান, সাতকানিয়া উপজেলায় আজকের অভিযানে গিয়ে দেখা যায় ইটভাটাগুলোর পরিবেশগত ছাড়পত্র ও জেলা প্রশাসনের লাইসেন্স নেই। কৃষি জমি ও পাহাড় থেকে মাটি নিয়ে ইট উৎপাদন করে আসছিল। মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী চট্টগ্রাম জেলার সকল অবৈধ ইটভাটা উচ্ছেদে আমাদের অভিযান চলমান থাকবে।

সিএসপি/কেসিবি/৫ঃ৪৫পিএম

ট্যাগ :