শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০ ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, সময় : সকাল ৮:৫৩

সাহেদকে নিয়ে গোপন বাসায় র‌্যাবের অভিযান, জাল টাকা উদ্ধার


প্রকাশের সময় :১৫ জুলাই, ২০২০ ৩:২৩ : অপরাহ্ণ

সিএসপি নিউজ : রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান সাহেদকে ইন্টারোগেশন সেলে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে উত্তরার ১১ নম্বর সেক্টরে একটি বাসায় অভিযান চালিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। সেটি সাহেদের গোপন বাসা বলে জানিয়েছ র‌্যাব। সেখানে থেকে এক লাখের ওপরে জাল টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার (১৫ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে র‌্যাব সদর দফতর থেকে সাহেদকে নিয়ে উত্তরার ১১ নম্বর সেক্টরের ২০ নম্বর রোডের ৬২ নম্বর বাড়িতে অভিযান চালায় র‌্যাব। সেখানে এক ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে চলে অভিযান।

র‌্যাবের গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ বলেন, ‘সাহেদের দেওয়া তথ্যমতে ওই গোপন বাসা থেকে বেশকিছু কাগজপত্রসহ জাল টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘অভিযান শেষ করে সাহেদকে আবারও র‌্যাব সদর দফতরে নেওয়া হয়েছে।’

এদিকে র‌্যাবের আরেকজন কর্মকর্তা বলেন, ‘সাহেদের ওই বাসা থেকে এক লাখের মতো জাল টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। সেখানে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপস্থিত ছিলেন।’
বাসাটিতে অভিযানের আগে সাহেদের উপস্থিতিতে দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করেন র‌্যব সদস্যরা। বাড়ির মালিক বলেন, ‘প্রায় ১৫ মিনিট লাগে দরজা ভাঙতে। দুই মাস আগে বাসাটি ভাড়া নেন সাহেদ। গত মাসের ভাড়াও দেননি তিনি। বাসায় রাতের বেলায় আসতেন সাহেদ।
এদিকে উত্তরা এলাকায় একাধিক প্রতারিত লোকজন আসতে শুরু করেছে। টাকা আনতে গেলে নানা হুমকি দিয়েছেন বলে জানান ভুক্তভোগীরা। মুরাদ নামে একজন ইলেক্ট্রিশিয়ানকে বেতনের টাকার চেক দিয়েছিলেন। সেটিও ব্যাংকে দিলেও টাকা মেলেনি। পরে তার কাছে গেলে সে ওই ইলেক্ট্রিশিয়ানকে হুমকি দেন।
বুধবার (১৫ জুলাই) ভোর ৫ টা ১০ মিনিটে সাহেদকে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার শাখরা কোমরপুর সীমান্ত এলাকা থেকে গ্রেফতার করে র‌্যাবের বিশেষ দল। শাখরা কোমরপুর গ্রামের লবঙ্গবতী নদীতীরের ইছামতি খাল দিয়ে সে ভারতে পালানোর চেষ্টা করছিলেন। সাহেদ স্থানীয় দালালের মাধ্যমে সীমান্ত পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা করছিলেন বলে র‌্যাব জানিয়েছে।
এর আগে সাহেদের রিজেন্ট হাসপাতালে করোনা পরীক্ষা ও চিকিৎসায় অনিয়ম-প্রতারণার বিভিন্ন অভিযোগ উঠে আসে  অনুসন্ধানে। বিভিন্ন অভিযোগ জমা পড়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরেও। ৬ জুলাই হাসপাতালটিতে অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে বিভিন্ন অনিয়ম-প্রতারণার প্রমাণ মেলে। পরে রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুর শাখা সিলগালা করে প্রশাসন।